২১ নভেম্বর ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ৪৫শ সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ০৫নভে–১১নভে ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 45th issue: Berlin,Sunday 05Nov-11Nov 2017

কাবা শরীফের ছবি ফটোশপ ও বাঙালি সেন্টিমেন্ট

শনিবারের ভাবনা

প্রতিবেদকঃ মোনাজ হক তারিখঃ 2016-11-05   সময়ঃ 07:45:31 পাঠক সংখ্যাঃ 573

বিবর্তনবাদের দর্শন ও তথ্য অনুযায়ী মানবজাতির বয়স কম পক্ষে ১ মিলিয়ন বৎসর, আর ধর্মমতে মানবজাতি তখন থেকেই পৃথিবীতে বসবাস করছে যখন থেকে আদম/হওয়া পৃথিবীতে অবতীর্ণ হলো, সে হিসেবে মাবব জাতির বয়স ১৩ বিলিয়ন বৎসর। ঈশ্বর ছয় দিনে এই বিশ্ব ভ্রমান্ড সৃষ্টি করেন এবং বাকি একটি দিনে অর্থাৎ সপ্তম দিনে ঈশ্বর প্রথম মানব আদম ও ইভ এবং ইডেন উদ্যানে সব প্রাণী সৃষ্টি করেন কিন্তু আদম ও ইভ কে গন্ধম ফল খেতে নিষেধ করেন সৃষ্টিকর্তা - কোনো এক দিন আদম ও ইভ গন্ধম ফল খাওয়ার পরে স্বর্গের ইডেন উদ্যানে থেকে পৃথিবীতে নিক্ষেপ করা হয়। ক্রমে ক্রমে আদম ও ইভ থেকেই জাতি-গোষ্ঠী- দেশ-সমাজ তৈরী হয়। তারপর আসে ধর্ম যা মানুষকে এই বিশ্ব ভ্রম্মান্ডের সৃষ্টিরহস্যের ব্যাখ্যা দেয় প্রতিটি ধর্মই তাদের নিজেদের মতো করে। আজ এই একবিংশ শতাব্দীতে বিশ্ব ভ্রম্মান্ডের জাতি-গোষ্ঠী- দেশ-সমাজ কে জানতে আমরা এক দেশ থেকে আর একদেশে ঘুরে ফিরে নিজের অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করি, অন্যমানুষের সাথে তা শেয়ার করি FB তে ছবি ও লেখা পোস্ট করি। সম্প্রতি দুটি ঘটনা ও FB তে ছবি আপলোড নিয়েই আজকে আমার শনিবারের ভাবনা > image source: http://kids.britannica.com

যে কথা শুরুতেই বলছিলাম মানবজাতির বয়স কম পক্ষে ১ মিলিয়ন বৎসর বিবর্তনবাদীরা বলেন। ধর্ম এসেছে তার ও অনেক পরে, আব্রাহাম বা ইব্রাহিম (স:) কে বলা হয় ৩ টি বৃহৎ ধর্মের প্রবক্তা, জুডাইসম. ক্রিস্টিয়ানিটি এবং ইসলাম। আব্রাহাম এর জন্ম খ্রিস্ট জন্মের ও ১৮০০ বছর আগে প্রাচীন ব্যাবিলনের উর কাশদীম শহরে। সে সময়ের ব্যাবিলন এর রাজা নমরুদ যখন জানতে পারলো যে তারই রাজ্যে এক শিশুর জন্ম হয়েছে সে একদিন ব্যাবিলনের সিংহাসন দখল করবে, তখন থেকেই আব্রাহামকে হত্যার পরিকল্পনা হয়। ইতিহাস থেকে জানা যায় আব্রাহামের জীবনে শুরু হয় এক্সডুস (পালিয়ে দাড়ানো) তিনি ব্যাবিলন (ইরাক) থেকে, সিরিয়া হয়ে মিশরের পথে কোনো এক সময় মক্কায় আসেন এবং মিশর থেকে ক্যানান (ইস্রায়েল এর সাবেক নাম) যাত্রা করেন। ঐতিহাসিকরা আরো বলেন আব্রাহাম ই কাবা (চৌকষ ঘড়) নির্মাণ করেন। প্রথম দিকে কাবায় পৌত্তলিক পূজা হলেও, পরবর্তীতে হাজরাত মুহাম্মদ (স:) এর নেতৃত্বে যখন ইসলাম আরব ভূখণ্ডে বিস্তার লাভ করে তখন থেকেই কাবার পবিত্রতা রক্ষা করে আসছেন মক্কার মুসলমানরা। সেখান থেকে দেখতে গেলে সেই পবিত্র কাবা শরীফের ফটো বিকৃত করে FB তে ফটোশপ করে ছবি পোস্ট করা একটা গর্হিত কাজ।

বাংলাদেশে যে ঘটনাগুলো গত এক সপ্তাহ ধরে হচ্ছে তা অত্যান্ত নিন্দনীয়, কাবা শরীফের ফটোশপ করে পোস্ট করার ফলে হিন্দু বাড়ীঘর লুট পাট ও মন্দিরে অগ্নিসংযোগ করা। যে ব্যক্তি এই ফটো শপ টি করেছে তাকে পুলিশ ধরেছে তার বিচার হবে, কিন্তু সেটা নিয়ে এতটা বারাবারির কি কোনো যুক্তি আছে? একজন ফটোশপ করে ছবি পোস্ট করেছে বলেই কি আবার কাবা শরীফে পৌত্তলিক পূজা ফিরে আসবে? একজন ফটোশপ করে ছবি পোস্ট করেছে বলেই কি আবার কাবা শরীফে পৌত্তলিক পূজা ফিরে আসবে? তাতো নয়, কাবা শরীফ মক্কা নগরীতেই থাকবে আর কখনো সেখানে পৌত্তলিক পূজা হবে না, বিগত ১৪ শত বছরেও যা হয়নি তা এখনো হবে না, বরং প্রতি বছর হজ যাত্রীর সংখ্যা বাড়ছে এই সত্যিটি উপলব্ধি করতে পারলেই বাঙালিরা হয়তো এতটা সেন্টিমেন্টাল হতো না।

-  মোনাজ হক



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ