২৫ এপ্রিল ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ০২য় সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ০৮ জানু –১৪ জানু ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 02nd issue: Berlin, Sunday 08 Jan–14 Jan 2017

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় কলঙ্কজনক অধ্যায়

এভাবেই পশ্চিমবঙ্গের আগামী অর্থবর্ষের বাজেট প্রস্তাব পেশ হলো বিধানসভায়

প্রতিবেদকঃ ডিডাব্লিউ তারিখঃ 2017-02-11   সময়ঃ 16:08:32 পাঠক সংখ্যাঃ 90

বিধানসভায় হাঙ্গামা৷ সে এমনই হাঙ্গামা যে গুরুতর চোট নিয়ে বিরোধী দলনেতা, কংগ্রেস বিধায়ক আবদুল মান্নান এখন হাসপাতালে৷ এর প্রতিবাদে বাজেট অধিবেশন বয়কট করলেন বিরোধীরা৷

বুধবার ‘‌সম্পত্তি ক্ষতি রোধ’ বিল পেশ করার সময় সরকার বনাম বিরোধীদের তুমুল বিরোধ শুরু হয় বিধানসভায়৷ ধস্তাধস্তি, ধাক্কাধাক্কিতে গুরুতর চোট পান বিরোধী দলনেতা, কংগ্রেস বিধায়ক আবদুল মান্নান৷ তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এখনও৷ এই হাঙ্গামার পর থেকেই বিধানসভা অধিবেশন বয়কট করে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন বিরোধীরা৷ বৃহস্পতিবারও সভায় সরকারের পেশ করা শিক্ষা বিলটি ছিঁড়ে, আগুন ধরিয়ে বিক্ষোভ দেখান হয়৷ সি পি এম বিধায়ক সুজন দাশগুপ্ত বলেছেন, যেভাবে সরকারের সমর্থনে বিরোধী বিধায়কদের ওপর হামলা করা হল, পশ্চিমবঙ্গের ইতিহাসে তা বেনজির৷ দুই মহিলা বিধায়ক প্রতিমা রজক এবং জাহানারা খাতুনের সঙ্গে অসভ্যতা করা হয়েছে৷ প্রতিমা রজক বিধানসভার মার্শালের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন৷ তবে এসবের মধ্যেও অসুস্থ আবদুল মান্নান–কে দেখতে যান পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় এবং উপ সচেতক তাপস রায়৷ যদিও মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কেন বিরোধী দলনেতাকে দেখতে যাননি, সেই প্রশ্ন তোলেন বিরোধীরা৷

হাঙ্গামার জেরে বাজেটের দিনটি বয়কট করলেও সভার বাইরে বিকল্প বাজেট পেশ বিরোধীরা করেছেন৷

এভাবেই পশ্চিমবঙ্গের আগামী অর্থবর্ষের বাজেট প্রস্তাব পেশ হলো বিধানসভায়৷ যে প্রস্তাবের সূচনা হলো কেন্দ্র সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের দীর্ঘ সমালোচনায়৷ নোট বাতিলের ফলে রাজ্যের এবং সারা দেশের অর্থনীতি কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং ভবিষ্যতেও হবে, তার বিশদ ব্যাখ্যা দেওয়া হলো৷ একদিকে কেন্দ্র সরকারের নোট বাতিল এবং রাজ্যে পূর্বতন বামফ্রন্ট সরকারের ছেড়ে যাওয়া বিপুল ঋণের বোঝার সমালোচনায় বাজেট ভাষণের অনেকটা সময় খরচ করলেন পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র৷ তবে সরকার পক্ষের টেবিল চাপড়ানি ছাড়া এদিন বিধানসভায় দ্বিতীয় কোনও শব্দ ছিল না৷ কারণ, বুধবার বিধানসভায় হাঙ্গামা এবং বিরোধী বিধায়কদের ওপর শাসকদলের বিধায়কদের হামলার প্রতিবাদে এদিন বাজেট অধিবেশন বয়কট করে কংগ্রেস এবং বামফ্রন্ট৷ বাজেট ভাষণের সময় সভার বাইরে বিক্ষোভ দেখান বিরোধীরা৷ তার পর নকল অধিবেশন সাজিয়ে এক বিকল্প বাজেট পেশ করেন৷ যদিও এই বিকল্প বাজেট নেহাতই প্রতীকি, তা সত্ত্বেও যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়েই তার খসড়া তৈরি করা হয়৷ স্রেফ এটা বোঝাতে যে বর্তমান রাজ্য সরকারের অর্থনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গীর সঙ্গে বিরোধীদের নীতির কতটা তফাত৷ কংগ্রেস বিধায়ক সুখবিলাস ভার্মা, যিনি প্রাক্তন আই এ এস, এবং সিপিআইএম–এর সুজন দাশগুপ্ত মিলে খসড়াটি তৈরি করেন৷ পরামর্শ নেওয়া হয় রাজ্যের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী, অর্থনীতির অধ্যাপক অসীম দাশগুপ্তের৷ সুখবিলাস ভার্মা বিকল্প বাজেট ভাষণ দেন৷ রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় যদিও কটাক্ষ করেছেন এই বিকল্প বাজেটকে৷ বলেছেন, আগের বামফ্রন্ট সরকার ২ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ শোধের দায় এই সরকারের ঘাড়ে চাপিয়ে রেখে গেছে৷ বাম বিধায়কদের মুখ দেখানোর উপায় কোথায়!‌



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে কেউ ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না। ২০২১ সালের মধ্যেই বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে। আপনিও কি তাই মনে করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ