২২ জুন ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ১১ম সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ১২ মার্চ – ১৮ মার্চ ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 11th issue: Berlin, Sunday 12 Mar – 18 Mar 2017

‘আড়ি পাতার কোনো প্রমাণ নেই'

মারাত্মক অভিযোগ সংসদেও ধোপে টিকলো না

প্রতিবেদকঃ ডয়েচে ভেলে তারিখঃ 2017-03-17   সময়ঃ 19:29:35 পাঠক সংখ্যাঃ 104

নির্বাচনি প্রচারের সময় প্রেসিডেন্ট ওবামা প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপর নজরদারি চালিয়েছিলেন – এমন মারাত্মক অভিযোগ সংসদেও ধোপে টিকলো না৷ ট্রাম্প অবশ্য মরিয়া হয়ে এখনো নিজের দাবিতে অটল রয়েছেন৷

মার্কিন কংগ্রেসের সেনেট ইন্টেলিজেন্স কমিটিতে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান ও বিরোধী ডেমোক্র্যাট – দুই দলেরই সদস্য রয়েছেন৷ তাঁরা ট্রাম্পের মারাত্মক অভিযোগ খতিয়ে দেখে বলেছেন, ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারের সময়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের টেলিফোনে আড়ি পাতার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি৷

এমনকি ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ সহযোগী বলে পরিচিত স্পিকার পল রায়ান-ও সেই সুরে সুর মেলালেন৷ তিনিও বলেন, যে ট্রাম্পের উপর নজরদারির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি৷

কমিটির সদস্য ও ডেমোক্র্যাটিক দলের এক সংসদ সদস্যের মতে,  ট্রাম্প ফক্স নিউজ-এর সঙ্গে এ বিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ফাঁস করে দিয়েছেন৷

তবে কোণঠাসা হয়েও নিজের ভুল ধারণা মেনে নিতে প্রস্তুত নন ট্রাম্প৷ হোয়াইট হাউস মুখপাত্র শন স্পাইসার সাংবাদিকদের প্রশ্নবানে জর্জরিত হয়েও সেই অভিযোগ আঁকড়ে ধরে রাখলেন৷ প্রেসিডেন্টের অভিযোগের সপক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে না পেরে তিনি মরিয়া হয়ে সংবাদ মাধ্যমের বিরুদ্ধে একপেশে সংবাদ পরিবেশনের অভিযোগ আনতে লাগলেন৷

প্রশ্ন উঠছে, ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প কোনো বিষয়ে সন্দেহ হলে সরাসরি গোয়েন্দা সংস্থাগুলির কাছে সত্য যাচাই করে নিতে পারেন৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও তিনি কোনো তথ্য-প্রমাণ সংগ্রহ না করে টুইটারের মাধ্যমে পূর্বসূরি বারাক ওবামার বিরুদ্ধে এমন মারাত্মক অভিযোগ করে বসেছেন৷ ফক্স নিউজের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, তিনি আসলে কোনো গোয়েন্দা সংস্থার শক্তির অপব্যবহার করতে চান নি৷ সেইসঙ্গে তিনি অদূর ভবিষ্যতে নিজের অভিযোগের সপক্ষে প্রমাণ পেশ করার ইঙ্গিতও দিয়েছেন৷

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশের প্রাইমারি ও মাধ্যমিক শিক্ষা পাঠক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ তে বিতরণকরা নতুন বইয়ে অদ্ভুত সব কারণ দেখিয়ে মুক্ত-চর্চার লেখকদের লেখা ১৭ টি প্রবন্ধ বাংলা বই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ইসলামী মৌলবাদী লেখা যোগ হয়েছে, আপনি কি এই পুস্তক আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য অনুমোদন করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ