২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ৩৬শ সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ০৩সেপ্টে – ০৯সেপ্টে ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 36th issue: Berlin,Sunday 02Sep - 09Sep 2017

উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে জার্মানির কঠোর অবস্থান

দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং রাশিয়া রবিবারই পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানায়৷

প্রতিবেদকঃ ডয়েচে ভেলে তারিখঃ 2017-09-04   সময়ঃ 21:14:57 পাঠক সংখ্যাঃ 67

উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে জার্মানি৷ বার্লিনে উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধিকে জার্মান পররাষ্ট্র দপ্তর ডেকে পাঠায়৷ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, জার্মানি এবং ফ্রান্স কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পক্ষে৷
সোমবার বার্লিনে উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধিকে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য জার্মান পররাষ্ট্র দপ্তরে ডেকে পাঠানো হয়৷ পরে এক বিবৃতিতে জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র স্টেফেন সাইবার্ট জানান, জার্মানির চ্যান্সেলর ম্যার্কেল এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট্ মাক্রোঁ ইইউ-এর প্রতি উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বান জানিয়েছেন৷
উত্তর কোরিয়া এবার আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাও চালাতে পারে বলে মনে করছে দক্ষিণ কোরিয়া৷ পিয়ংইয়ং হাইড্রোজেন বোমা পরীক্ষা করায় ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপানসহ অনেক দেশ ক্ষুব্ধ৷ চলছে নিন্দাও৷
রবিবার উত্তর কোরিয়া দাবি করে যে তারা এমন পারমাণবিক অস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে, যা দূর পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের সঙ্গে নিক্ষেপ করা যায়৷
জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও দেশটি গত কয়েক বছর ধরেই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে আসছে৷


রবিবারের পারমাণবিক পরীক্ষার পরই যুক্তরাষ্ট্র ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক বৈঠকের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেমস ম্যাটিস জানান, পিয়ংইয়ংয়ের উপর কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে৷ তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিজেকে রক্ষা করার সক্ষমতা আছে৷ ম্যাটিস আরো বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপানসহ অন্যান্য মিত্র দেশগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে৷ সরাসরি সামরিক অভিযানের কথা তিনি বলেননি৷ তাঁর আশা, এর আগেই উত্তর কোরিয়া নিজের অবস্থান বদলাবে৷ এমনটি আশা করার কারণ জানাতে গিয়ে ম্যাটিস বলেন, ‘‘আমরা চাই না উত্তর কোরিয়া নামের কোনো দেশ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাক৷''
এদিকে উত্তর কোরিয়ার রবিবারের পারমাণবিক পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠক ডেকেছে৷
জাপান চায়, সেই বৈঠকে উত্তর কোরিয়ার ওপর আরো কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হোক৷ জাপানের রাষ্ট্রদূত কোরো বেশো বলেছেন, ‘‘আর সময় নষ্ট করা যাবে না৷ এমন কিছু করা দরকার, যাতে উত্তর কোরিয়া চাপটা অনুভব করে৷ ওরা এভাবে এগোতে থাকলে বড় বিপর্যয় ঘটে যেতে পারে৷''
দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং রাশিয়া রবিবারই উত্তর কোরিয়ার ষষ্ঠ পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানায়৷ দক্ষিণ কোরিয়া বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন৷ সে দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সোমবার এক বিবৃতিতে জানায়, উত্তর কোরিয়ার সর্বশেষ পারমাণবিক পরীক্ষায় আরো বড় হুমকির ইঙ্গিত রয়েছে৷ দক্ষিণ কোরিয়া মনে করছে, দূর পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের সঙ্গে নিক্ষেপ করা যায় এমন হাইড্রোজেন বোমার সফল পরীক্ষার ঘোষণা দিয়ে উত্তর কোরিয়া আসলে জানিয়ে দিলে যে, অচিরেই তারা দূর পাল্লার, অর্থাৎ আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাও চালাতে পারে৷ অবশ্য এ বিষয়ে এখনো উত্তর কোরিয়ার প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি৷ 
সোমবার থেকে চীনের জিয়ামেন শহরে শুরু হয়েছে ব্রিকস সম্মেলন৷ পাঁচ জাতির এ সম্মেলনে বরাবরের মতো এবারও অংশ নিচ্ছে ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া এবং চীন৷ তিন দিনের সম্মেলনের প্রথম দিনে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানানো হয়৷ এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘‘কোরীয় উপদ্বীপে পারমাণবিক ইস্যুতে চলমান উত্তেজনায় আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি৷ আমরা মনে করি, বিবদমান সব পক্ষের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে এর শান্তিপূর্ণ সমাধান হওয়া উচিত৷’’
রবিবারের পারমাণবিক পরীক্ষার পরই যুক্তরাষ্ট্র ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক বৈঠকের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেমস ম্যাটিস জানান, পিয়ংইয়ংয়ের উপর কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে৷ তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিজেকে রক্ষা করার সক্ষমতা আছে৷ ম্যাটিস আরো বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপানসহ অন্যান্য মিত্র দেশগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে৷ সরাসরি সামরিক অভিযানের কথা তিনি বলেননি৷ তাঁর আশা, এর আগেই উত্তর কোরিয়া নিজের অবস্থান বদলাবে৷ এমনটি আশা করার কারণ জানাতে গিয়ে ম্যাটিস বলেন, ‘‘আমরা চাই না উত্তর কোরিয়া নামের কোনো দেশ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাক৷''
এদিকে উত্তর কোরিয়ার রবিবারের পারমাণবিক পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠক ডেকেছে৷
জাপান চায়, সেই বৈঠকে উত্তর কোরিয়ার ওপর আরো কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হোক৷ জাপানের রাষ্ট্রদূত কোরো বেশো বলেছেন, ‘‘আর সময় নষ্ট করা যাবে না৷ এমন কিছু করা দরকার, যাতে উত্তর কোরিয়া চাপটা অনুভব করে৷ ওরা এভাবে এগোতে থাকলে বড় বিপর্যয় ঘটে যেতে পারে৷

দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং রাশিয়া রবিবারই উত্তর কোরিয়ার ষষ্ঠ পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানায়৷ দক্ষিণ কোরিয়া বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন৷ সে দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সোমবার এক বিবৃতিতে জানায়, উত্তর কোরিয়ার সর্বশেষ পারমাণবিক পরীক্ষায় আরো বড় হুমকির ইঙ্গিত রয়েছে৷ দক্ষিণ কোরিয়া মনে করছে, দূর পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের সঙ্গে নিক্ষেপ করা যায় এমন হাইড্রোজেন বোমার সফল পরীক্ষার ঘোষণা দিয়ে উত্তর কোরিয়া আসলে জানিয়ে দিলে যে, অচিরেই তারা দূর পাল্লার, অর্থাৎ আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাও চালাতে পারে৷ অবশ্য এ বিষয়ে এখনো উত্তর কোরিয়ার প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি৷ 
সোমবার থেকে চীনের জিয়ামেন শহরে শুরু হয়েছে ব্রিকস সম্মেলন৷ পাঁচ জাতির এ সম্মেলনে বরাবরের মতো এবারও অংশ নিচ্ছে ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া এবং চীন৷ তিন দিনের সম্মেলনের প্রথম দিনে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানানো হয়৷ এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘‘কোরীয় উপদ্বীপে পারমাণবিক ইস্যুতে চলমান উত্তেজনায় আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি৷ আমরা মনে করি, বিবদমান সব পক্ষের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে এর শান্তিপূর্ণ সমাধান হওয়া উচিত৷’’

এসিবি/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স, এপি, এএফপি)
 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

বাংলাদেশের প্রাইমারি ও মাধ্যমিক শিক্ষা পাঠক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ তে বিতরণকরা নতুন বইয়ে অদ্ভুত সব কারণ দেখিয়ে মুক্ত-চর্চার লেখকদের লেখা ১৭ টি প্রবন্ধ বাংলা বই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ইসলামী মৌলবাদী লেখা যোগ হয়েছে, আপনি কি এই পুস্তক আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য অনুমোদন করেন?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ