১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৬ষ্ঠ বর্ষ ৪১শ সংখ্যা: বার্লিন, রবিবার ০৮অক্টো – ১৪অক্টো ২০১৭ # Weekly Ajker Bangla – 6th year 41st issue: Berlin,Sunday 08Oct - 14Oct 2017

পুলিশ হত্যা চেষ্টার দায়ে কারাগারে সাবেক 'মিস্টার জার্মানি'

মামলার বাদী মনে করেন, আদ্রিয়ান রাইশব্যুর্গার আন্দোলনের সাথে জড়িত

প্রতিবেদকঃ ডয়চে ভেলে তারিখঃ 2017-10-10   সময়ঃ 00:33:28 পাঠক সংখ্যাঃ 45

এক সময় জার্মানির সবচেয়ে সুদর্শন পুরুষের খেতাব জিতেছিলেন আদ্রিয়ান ইউ৷ এক পুলিশকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করার অভিযোগে তিনি এখন কারাগারে৷ মামলার বাদী মনে করেন, আদ্রিয়ান রাইশব্যুর্গার আন্দোলনের সাথে জড়িত এক কট্টর ডানপন্থি৷

সোমবার জার্মানির হালে শহরের আদালতে হাজির করার আগে পুলিশ তাঁকে এই হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করে৷ 

গত বছরের আগস্টে জার্মানির বিশেষায়িত ‘এসইকে' কমান্ড বাহিনীর এক অফিসারকে গুলি করার অভিযোগে ৪২ বছর বয়সি এই সুদর্শনকে কারাগারে যেতে হয়৷ কর্তৃপক্ষ তাকে সাক্সনির রয়ডেনে তার বাড়ি থেকে তাকে জোর করে বের করে আনে৷  

আদালতকে পাবলিক প্রসিকিউটর জানান, কোনোরকম দ্বিধা ছাড়াই পুলিশ সদস্যের মাথা লক্ষ্য করে গুলি করা হয়েছিল৷ কেবল মাথায় শক্ত হেলমেট থাকায় তিনি মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে গেছেন৷

রাইশব্যুর্গারদের একাত্মতা

প্রসিকিউশন এ কথাও জানায় যে, আদ্রিয়ান ইউ তথাকথিত ‘রাইশব্যুর্গার আন্দোলনের' সাথে জড়িত ছিল৷ ধারণা করা হয়, তিনিও ‘রাইশ নাগরিক'দের একজন, যারা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ফেডারেল জার্মান প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠাকে অস্বীকার করে৷ বর্তমানের বদলে তারা কেবল আগের আইন ও সংবিধান মানে৷

'প্রতিহত করার অধিকার'

আদ্রিয়ান ইউ অবশ্য হত্যা চেষ্টার এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন৷ তিনি বলেন, যদিও তাঁর হতে সেই সময় অস্ত্র ছিল, তবে তিনি গুলি করেননি৷ একইসাথে তাঁর বিরুদ্ধে কট্টর ডানপন্থা অবলম্বনের যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা-ও অস্বীকার করেন তিনি৷ আদালতকে বলেন, ‘‘আমি একজন জার্মান নাগরিক৷বাড়িতে যখন কেউ আমার ওপর আক্রমণ করে, তখন তা ঠেকানোর অধিকার আমার আছে৷''

এএম/এসিবি (ডিপিএ, এএফপি)

 

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ