২৪ অক্টোবর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ১১ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ১২মার্চ –১৮মার্চ ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 11 issue: Berlin, Monday 12Mar-18Mar 2018

বিশ্বে কার কত ভুয়া ফলোয়ার

এক নম্বরে মোদী

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-03-15   সময়ঃ 01:34:17 পাঠক সংখ্যাঃ 270

নিজেদের জনপ্রিয়তা প্রমাণ করার জন্য বরাবরই বিশিষ্ট মানুষেরা নানারকম পন্থা অবলম্বন করেন৷ রাজনীতিকেরা যার মধ্যে অন্যতম৷ দেখা যাচ্ছে, ইদানীং সোশ্যাল নেটওয়ার্কে তাঁরা ভুয়া ফলোয়ার তৈরি করছেন৷

এক নম্বরে মোদী

অ্যামেরিকার সঙ্গে বরাবরই ভালো সম্পর্ক রাখতে চায় নরেন্দ্র মোদীর সরকার৷ বারাক ওবামার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভালো ছিল৷ ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গেও মধুর৷ মোদীর লক্ষ্য অ্যামেরিকার সমকক্ষ হয়ে ওঠা৷ অন্য বিষয়ে না হলেও একটি বিষয়ে অবশ্য ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ছাড়িয়ে গেছেন তিনি৷ সমীক্ষা বলছে টুইটারে সবচেয়ে বেশি নকল বা ভুয়া ফলোয়ার আছে মোদীর৷ সব মিলিয়ে যার সংখ্যা ৬০ শতাংশ৷

 

দু’নম্বরে পোপ ফ্লান্সিস

নরেন্দ্র মোদীর চেয়ে খুব পিছিয়ে নেই ভ্যাটিকান সিটির পোপ ফ্রান্সিস৷ এমনিতেই পোপ ফ্রান্সিসের বিপুল সমর্থন৷ পৃথিবীর বিভিন্ন অঞ্চলে ঘুরে বেড়িয়েছেন তিনি৷ এমন কিছু কাজ করেছেন, এতদিন পর্যন্ত কোনো পোপের কাছ থেকে মানুষ যা কল্পনাও করেননি৷ অনেক বেশি মাটির মানুষ তিনি৷ কিন্তু তাই বলে টুইটারে ভুয়া ফলোয়ার? ফ্লান্সিসের ভুয়া ফলোয়ারের সংখ্যা ৫৯ শতাংশ৷

 

তিন নম্বরে পেনা নিয়েটো

এনরিক পেনা নিয়েটো মেক্সিকোর জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ৷ এই মুহূর্তে তিনি মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট৷ তাঁকে ঘিরে যেমন বহু বিতর্ক আছে, আবার তাঁর প্রতি সমর্থনের জোয়ারও কম নয়৷ অনেকেই ভাবতে পারেননি সমর্থন প্রচারের জন্য তিনিও টুইটারে ভুয়া ফলোয়ারের সাহায্য নেবেন৷ তাঁর ভুয়া ফলোয়ারের সংখ্যা ৪৭ শতাংশ৷

 

চার নম্বরে কিম কার্দেশিয়ান

মার্কিন মুলুকের জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো’য়ের উপস্থাপক কিম কার্দেশিয়ান ওয়েস্ট৷ তবে তিনি সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়েছিলেন প্যারিস হিল্টনের বন্ধু হিসেবে৷ নিয়মিত টুইট করেন কিম৷ টুইটে তাঁকে ফলো করেন বহু মানুষ৷ কিন্তু জনপ্রিয়তা ধরে রাখার জন্য তাঁকেও যে ভুয়া ফলোয়ারের আশ্রয় নিতে হয়, জানতেন না অনেকেই৷ তাঁর ভুয়া ফলোয়ারের সংখ্যা ৪৪ শতাংশ৷

 

পাঁচ নম্বরে ট্রাম্প

শতাংশের বিচারে পাঁচ নম্বরে হলেও সংখ্যার বিচারে এক নম্বরে ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ টুইটারে ট্রাম্পের অনুগামীর সংখ্যা ৪৭ দশমিক ৯ মিলিয়ন৷ সমীক্ষা বলছে, এর মধ্যে ৩৭ শতাংশই ভুয়া৷ প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগেও নিজের ফলোয়ারের সংখ্যা নিয়ে বরাই করতেন ট্রাম্প৷ দেখাতেন তাঁর অনুগামীর সংখ্যা৷ বোঝাই যাচ্ছে, অর্থের বিনিময়ে সেই জনপ্রিয়তা তৈরি করেছিলেন তিনি৷

ছ’নম্বরে টেলর সুইফট

মার্কিন পপ দুনিয়ায় এই মুহূর্তে কার্যত রাজত্ব করছেন গায়ক এবং কম্পোজার টেলর সুইফট৷ অসম্ভব জনপ্রিয়তা তাঁর৷ নিয়মিত টুইটও করেন টেলর৷ কিন্তু দেখা যাচ্ছে তাঁর ১৯ শতাংশ ফলোয়ারই আসলে ভুয়া৷

সাত নম্বরে কিং সালমান

তিনি একাধারে আরবের রাজা এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দু’টি মসজিদের রক্ষাকর্তা৷ আরব দুনিয়ায় তাঁর ক্ষমতা প্রশ্নাতীত৷ সালমান অফ সৌদি আরবিয়া ইদানীং সোশ্যাল নেটওয়ার্কেও নিয়মিত পোস্টকরেন৷ টুইটে তাঁর ফলোয়ারের সংখ্যা নেহাত কম নয়৷ কিন্তু দেখা যাচ্ছে, তিনিও ভুয়া ফলোয়ার তৈরি করেছেন৷ তথ্য বলছে, ৮ শতাংশ ভুয়া ফলোয়ার আছে সালমানের৷

 

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ