২৫ এপ্রিল ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ১৩ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ২৬মার্চ –০১এপ্রি ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 13 issue: Berlin, Monday 26Mar-01Apr 2018

বয়স্কদের সঙ্গী খুঁজতে স্পিড ডেটিং

ভালোবাসার সম্পর্কে ‘বিশ্বাস’ কি হারিয়ে যাচ্ছে?

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-03-27   সময়ঃ 01:25:38 পাঠক সংখ্যাঃ 65

বন্ধু বা সঙ্গী খুঁজতে তরুণ প্রজন্মের জন্য ‘স্পিড ডেটিং’-এর চল বেশ কিছুকাল ধরেই রয়েছে৷ কিন্তু নিঃসঙ্গ বৃদ্ধরাও কেন এর স্বাদ পাবেন না? সুইডেনে তাই বয়স্কদের জন্য চালু হয়েছে সেই অভিনব ব্যবস্থা৷

সংলাপের জন্য সাত মিনিট স্থির করে দেওয়া হয়৷ প্রাথমিক পরিচয়ের জন্য এই সময় বরাদ্দ করা হয়েছে৷ বয়স্কদের এই দুপুরের আড্ডায় নতুন মানুষের সঙ্গে পরিচয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ একে বলে ‘স্পিড ডেটিং’৷ নিজের সম্পর্কে ভালো ধারণা তৈরি করতে বা অন্যকে বুঝতে হাতে বেশি সময় থাকে না৷ সময়ের চাপের মূল উদ্দেশ্য হলো, অংশগ্রহণকারীরা যাতে শুরু থেকেই নিজের খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসে৷ বয়স্কদের স্পিড-ডেটিং আয়োজক বির্গিটা ভিনব্লাড বলেন, ‘‘একে অপরের সঙ্গে উৎসাহ নিয়ে কথা বলতে দেখলে মনে আশা জাগে, যে তারা হয়তো আবার মিলিত হয়ে একসঙ্গে ভালো কিছু করবে৷ সেটাই আমাদের লক্ষ্য৷’’

আচমকা সংলাপ শেষ৷ নিজের সম্পর্কে অনেক কিছু বলে ফেলার পর কেউ কেউ বিস্ময়ে হতভম্ব হয়ে পড়েন৷ একজন জানালেন, কথা শুরু করা মোটেই কঠিন নয়৷ তবে স্পিড ডেটিং মোটেই ধ্যানের মতো নয়৷ এদিকে আবার ফ্লার্ট করার পর খিদে পায়৷ নতুন বন্ধু খুঁজতে হলে শরীর-মন তাজা রাখতে হবে৷ বির্গিটা বলেন, ‘‘একটা বয়সের পর নতুন বন্ধু পাওয়া মোটেই সহজ নয়৷ নতুন কারো পক্ষে পুরানো বন্ধুদের দলে ঢোকাও সহজ নয়৷’’

তবে স্পিড ডেটিং করতে এসে জীবনসঙ্গী পাবার আশা প্রায় কেউই করেন না৷ নতুন বন্ধু পেলে সেটাই বড় সাফল্য বলে মনে করা হয়৷ ধীরে ধীরে পরিবেশ সৃষ্টি হয়৷ প্রতিটি সাত মিনিটের সংলাপের পর আড়ষ্টতাও কিছুটা কমে যায়৷

ক্লাস অলিভার রিশটার/এসবি

ভালোবাসার সম্পর্কে ‘বিশ্বাস’ কি হারিয়ে যাচ্ছে? 

পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ার কারণ

বিবাহিত নারী বা পুরুষের কাউকে ভালো লাগতে পারে বা তাঁরা কারও প্রেমেও পড়তে পারেন৷ বিয়ের পর প্রেমে পড়া এবং ভালোলাগার মানুষটির সাথে অবৈধ সম্পর্ক তৈরি করাই পরকীয়া৷ সাধারণত ধরে নেয়া হয়, তাঁরাই এই সম্পর্ক তৈরি করে যাঁরা দাম্পত্য জীবনে পুরোপুরি সুখি নয় বা যাঁদের সম্পর্কে সমস্যা রয়েছে৷ তবে এর ব্যতিক্রমও হয়ে থাকে!

কে দায়ী?

দাম্পত্য জীবনে অশান্তির একটি বড় কারণ হচ্ছে পরকীয়া প্রেম৷ এ কারণে বহু সংসার ভেঙে যায়৷ তবে এ ব্যাপারে নারী বা পুরুষ, কে দায়ী তা বলা মুসকিল৷ একজন পার্টনার পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে গেলে, অন্যজন তাঁর প্রতি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্যও অনেক সময় নিজেকে অন্য আরেকজনের সাথে জড়িয়ে ফেলেন৷

সহকর্মীর সাথে পরকীয়া প্রেম

দিনের বেশিরভাগ সময়ই মানুষ কর্মস্থলে কাটায়৷ সে কারণে নিজের নানা সমস্যার কথা অনেকেই সহকর্মীদের সাথে শেয়ার করে থাকেন৷ এ সবের মধ্য দিয়ে প্রথমে সহানুভূতি এবং পরে পরকীয়া প্রেমের জন্ম হতে পারে৷ জার্মানিতে এ রকম ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে৷

 

যাঁদের ভোগান্তি

মা-বাবার পরকীয়া প্রেমে কষ্ট পায় আসলে সন্তানরা, বিশেষ করে তাদের বয়স যদি কম হয়৷ হঠাৎ করে মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক বা অন্যরকম আচরণ শিশুদের আতঙ্কিত করে৷ শিশুমনে পড়ে এর নেতিবাচক প্রভাব, যা হয়ত সারাজীবন থেকে যায়৷

স্যোশাল মিডিয়া

আধুনিক বিশ্বে স্যোশাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমও যে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ার একটা কারণ, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না৷ তবে জার্মানিতে কিন্তু পরকীয়া প্রেমে স্যোশাল মিডিয়ার ভূমিকা তেমন বড় নয়৷

 

কথা বলুন, কথা বলুন আর কথা বলুন

ভালোবাসার সম্পর্কে যখন চিড় ধরতে বা দূরত্ব তৈরি হতে শুরু করে, তখনই নিজের অসন্তোষ বা ভালো ‘না’ লাগার বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলুন৷ প্রয়োজনে শতবার৷ কারণ পরকীয়া প্রেমে যে শুধু একটি পরিবারই ভেঙে যায়, তা নয়৷ এতে সামাজিকভাবেও নানা জটিলতা দেখা দেয়৷ তাই খোলাখুলি আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করার পরামর্শ জার্মান বিশেষজ্ঞ এরিক হেগমানের৷

 

 

 

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ