২৪ অক্টোবর ২০১৮ ইং
সাপ্তাহিক আজকের বাংলা - ৭ম বর্ষ ১৪ সংখ্যা: বার্লিন, সোমবার ০২এপ্রি–০৮এপ্রি ২০১৮ # Weekly Ajker Bangla – 7th year 14 issue: Berlin, Monday 02Apr-08Apr 2018

কিশোরদের ছুরি বহন নিষিদ্ধ করতে চায় জার্মান পুলিশ

ছুরি নিয়ে আইন জোরদারের ব্যাপারে জার্মান পুলিশ ট্রেড ইউনিয়ন

প্রতিবেদকঃ DW তারিখঃ 2018-04-04   সময়ঃ 05:19:17 পাঠক সংখ্যাঃ 159

কিশোর বয়সিদের মধ্যে ছুরি নিয়ে হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়ানোর প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় সাংসদদের কাছে এ সংক্রান্ত আইন আরও কঠোর করার আবেদন করেছে জার্মান পুলিশ ট্রেড ইউনিয়ন৷

সংগঠনটির মতে, উঠতি বয়স কেউ ছুরি নিয়ে ঘুরলেই তাদের হত্যাচেষ্টার মামলার আইনের আওতায় আনা উচিত৷ এর আওতায় ‘বিশেষভাবে' অভিবাসীদের আনার কথাও বলেছে তারা৷ এছাড়া দেশটিতে ছুরি হাতে অপরাধমূলক কাজের শিগগিরই একটি পরিসংখ্যান প্রকাশের ওপরও জোর দিয়েছে সংগঠনটি৷ পুলিশের ট্রেড ইউনিয়নের পক্ষ থেকে এ আবেদনটি করা হয়েছে নতুন আইনমন্ত্রী কাটারিনা বার্লে এবং হর্স সিহোফোরের কাছে৷     

ছুরিকাঘাত সংক্রান্ত অপরাধগুলো বর্তমানে জার্মানিতে ‘' মামলার আওতায় বিচার করা হয়৷ জার্মান পুলিশের সংগঠনটি এ ধরনের অপরাধকে ‘হত্যা মামলা'র আওতায় নিয়ে আসার সুপারিশ করেছে৷

 

ছুরি নিয়ে আইন জোরদারের  ব্যাপারে জার্মান পুলিশ ট্রেড ইউনিয়ন (ডিপিওআইজি)-র যুক্তি হলো, ‘‘‘খুব সাধারণ বাদানুবাদেই ছুরি চালানো হয়৷ এগুলো বহন করা সহজ আর দামেও সস্তা৷''

২০১৫ ও ২০১৭ সালেও দুটি ঘটনায় ছুরি ব্যবহার হয়েছিল, যার একটিতে পূর্ব জামার্নির আলটেনা শহরের লিবারেল ডেমোক্র্যাট মেয়র অ্যানদ্রেঁয়াস হলস্টেন গুরুতর আহত হয়েছিলেন৷

ডিপিওআইজি বলছে, ছুরিকাঘাতের ঘটনাগুলো যদি হত্যাচেষ্টার মামলার আওতায় নিয়ে আসা যায় তাহলে পুলিশ অভিযুক্ত ব্যক্তিকে তদন্তের জন্য এক বছরের আটকাদেশের সুযোগ পাবে৷ অভিযুক্ত অভিবাসী বা শরণার্থী হলে তাকে নিজ দেশেও ফেরত পাঠাতে পারবে৷ 

বাড়ন্ত বয়সিদের জন্য কিছু তথ্য

কিশোর-কিশোরীদের ঘুম কেড়ে নিচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া

রাত জেগে জেগে ফেসবুক দেখে ক্লান্ত হয়ে পড়ছে ওরা৷ ফলে দিনেরবেলায় স্কুলে পুরোপুরি মনোযোগ থাকছে না৷ মোট ৯০০ কিশোর-কিশোরীদের নিয়ে কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্রিটিশ সমাজ বিজ্ঞানীদের করা এক গবেষণা থেকে এই তথ্য জানা গেছে৷ জানা গেছে এরা যে শুধু ক্লান্তই ছিল তা নয়, এদের মধ্যে আনন্দও ছিল কম৷

‘‘শারীরিক আঘাত আইনের আওতায় থাকায় ছুরিকাঘাতের মামলায় বর্তমানে অভিযুক্তকে কোনো ধরনের আটকাদেশের সুযোগ নেই, কেননা, তারা আইনানুযায়ী কম অপরাধী৷''

ডিপিওআইজি জার্মান সরকারি চাকরিজীবীদের সংগঠন বায়ামটান্ডবুন্দ-এর তালিকাভুক্ত সংগঠন৷    

 

এদিকে জার্মানির কেন্দ্রীয় পুলিশ সংগঠন ট্রেড অব ইউনিয়ন পুলিশ (জিডিপি) বলেছে, ‘দৃশ্যত' চাকু হাতে অপরাধ বাড়লেও এর কোনো প্রমাণ নেই, কেননা, এ সংক্রান্ত কোনও পরিসংখ্যান নেই৷''

গত জানুয়ারিতে লোয়ার সাক্সনির লুনেনে ১৪ বছর বয়সি এক কিশোর আরেক কিশোরের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়৷ এর আগে ডিসেম্বরে ১৫ বছর বয়সি এক কিশোরীকে তার আফগান প্রেমিক একটি দোকানে ছুরি মেরে হত্যা করে৷    

ডিপিওআইজি-এর জন্য ‘তরুণ আরব'দের দায়ী করে বলেছে, তাদের দ্বারাই এ আচরণ এদেশে এসেছে৷ ‘‘ছুরি নিয়ে চলার মধ্যে কোনও অপরাধ নেই'', কিশোরদের মধ্যে এই মনোভাব তৈরি করাতে তাদের ভূমিকা রয়েছে৷     

এ বিষয়ে সম্প্রতি সমীক্ষা চালিয়েছে ইউগোভ নামের একটি জরিপ সংস্থা৷সোমবার জরিপের ফল প্রকাশ হয়৷ এতে বলা হয়, তরুণ প্রজন্মের জার্মানদের মধ্যে ৫০ শতাংশেরও বেশি ছুরি আক্রমণের আশঙ্কা করে থাকেন৷ ১৮ বা তার চেয়ে বেশি বয়সি তরুণের ওপর করা এ জরিপে মাত্র ৪২ শতাংশ তরুণ ছুরিতে আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে ভীত নয় বলে জানিয়েছেন৷

লুকাস হানসেন/এইচআই

 



আজকের কার্টুন

লাইফস্টাইল

আজকের বাংলার মিডিয়া পার্টনার

অনলাইন জরিপ

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মিয়ানমার রোহিঙ্গা দেরকে অত্যাচার করে ফলে ২০১৭ তে অগাস্ট ২৫ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ মাসে ৫ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশ শরণার্থী দেরকে আবার ফিরে পাঠিয়ে দিক?

 হ্যাঁ      না      মতামত নেই    

সংবাদ আর্কাইভ